খেলতে মানা করা ব্যক্তিকেই ম্যাচ সেরার পুরস্কার উৎসর্গ

খেলতে মানা করা ব্যক্তিকেই ম্যাচ সেরার পুরস্কার উৎসর্গ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) শুক্রবার পাঞ্জাব কিংসের বিপক্ষে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছেন চেন্নাই সুপার কিংসের দীপক চাহার। একাই চার উইকেট শিকার করে হয়েছেন ম্যাচ সেরা। এরপর এই পুরস্কার একজন ব্যক্তিকে উৎসর্গ করেছেন তিনি। সেই ব্যক্তি আবার দীপককে ম্যাচটি খেলতে মানা করেছিলেন! নিজেদের প্রথম ম্যাচে দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে হেরে যায় চেন্নাই। সেই ম্যাচের পর এক সমর্থক দীপককে অনুরোধ করেন, পরের ম্যাচে তিনি যেন না খেলেন। ফলে পাঞ্জাব ম্যাচের সেরা পুরস্কার সেই সমর্থককেই উৎসর্গ করেছেন তিনি। ম্যাচের পর শার্দূল ঠাকুরের সঙ্গে কথোপকথনে এই কথা জানিয়েছেন হরিয়ানার পেসার। সুইং করিয়ে এবং বলে বৈচিত্র্য এনে শুক্রবার পাঞ্জাবের টপ অর্ডারের ব্যাটসম্যানদের ফেরত পাঠিয়েছিলেন চাহার। শুধু তাই নয়, তার করা ২৪টি বলের ১৮টিতেই রান করতে পারেননি ব্যাটসম্যানরা। শার্দূলকে ম্যাচের পর দীপক বলেন, দিল্লি ম্যাচের পর হোটেলে ফিরে ইন্টারনেট ঘাঁটছিলাম। সেখানেই দেখি একটা ছেলে আমাকে বার্তা পাঠিয়ে লিখেছে, ‘ভাই, আমরা জানি তুমি খুব ভাল বোলার। কিন্তু একটা অনুরোধ রয়েছে— পরের ম্যাচে খেলো না।’ তিনি আরও বলেন, আসলে মানুষের প্রত্যাশা সব সময়ই বেশি থাকে এবং সে জন্যেই আমাদের প্রতি ম্যাচে ভাল খেলতে হয়। তাই আমার ম্যাচ সেরার পুরস্কার ওই ছেলেটির জন্য। আমি না খেললে আজকের দিনটা তো দেখতে পেতাম না। শেষে দীপক যোগ করেন, একটা কথা বলি, যে কারো খারাপ দিন যেতে পারে। তবে এ জন্য কাউকে খারাপ ক্রিকেটারের তকমা দেয়া উচিত নয়। তাদের সমর্থন করা উচিত।