বেলকুচিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনা রোগীর সনাক্তের হার

বেলকুচিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনা রোগীর সনাক্তের হার
ছবিটিঃ বেলকুচি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের করোনা স্যাম্পলের সাইড থেকে তোলা

সারাবিশ্বে করোনা পরিস্থিতি যখন  মহামারিতে রুপ ধারণ করেছে ঠিক তখনই এ থেকে পিছিয়ে নেই সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলা। 
দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে এই উপজেলায় করোনায় রোগীর সনাক্তের হার। গত  ২৪ ঘন্টায় এই উপজেলায় আরো ১ জন রোগী সনাক্ত হয়েছে । এনিয়ে এখানে করোনা রোগীর  সংখ্যা গিয়ে দাড়ালো ২শ ২৫ জনে।

সর্বশেস  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দেওয়া তথ্যমতে সংবাদটি লেখা পর্যন্ত , বেলকুচি উপজেলায় ২০২০ সালের এপ্রিল মাসের ১২ তারিখে সর্বপ্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হয়।  ২০২১  সালে এপ্রিল ২১ তারিখ  পর্যন্ত এই উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলের ১৪শ ২৮ জনের করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তারমধ্যে ২শ ২৫ জনের করোনা পজেটিভ দেখা দিয়েছে। আক্রান্তের মাঝে থেকে  ৬ জন মারা গিয়েছে। মৃত্যদের মধ্যে ৫ জন পরুষ ১ মহিলা। সুস্থ হয়েছেন ২০৭ জন। আর হোম করেন্টাইনে রাখা হয়েছে ১২ জনকে।

বেলকুচি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার একেএম মোফাখখারুক ইসলাম এসম্পর্কে বলেন, করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে দেশজুড়ে।  তবে এতে ভয় না পেয়ে সরকারী দেওয়া স্বাস্থ্য বিধি মানলে এর প্রভাব বিস্তার রোধ করা যাবে। বিশেষ করে যারা  আক্রান্ত হয়েছেন তারা কোন সময় মানসিক দিক দিয়ে দূর্বল হবেন না। ঘন ঘন গরম পানি অথবা লেবুরস মেশানো পানি সেবন করুন। আর  ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ রাখুন।  এখনও যারা আক্রান্ত হননি তারা বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হবেন না। বের হওয়ার পূর্বে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে ঘন ঘন পরিস্কার করুন। 

এবিষয়ে বেলকুচি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যজিষ্ট্রেট আনিসুর রহমান  জানান, আমরা সব সময় চেষ্টা করছি বেলকুচি উপজেলার মানুষদের করোনা ভাইরাস সম্পর্কে  সচেতনতা করতে। সেই লক্ষ্যেই মাইকিং, মাস্ক ও লিফলেট  বিতরণ সহ বিভিন্ন ধরনের পদেক্ষেপ নিয়েছি। এছাড়াও করোনার বিস্তার রোধে  সরকার দেওয়া কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রতিদিন ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে আসছিন। এসব কার্যক্রম পরবর্তী নির্দেনা না আসা পর্যন্ত অব্যহত থাকবে।