বিশ্ব ঐতিহ্যের সম্ভাব্য তালিকায় দেশের ২১৫টি প্রত্নস্থান

বিশ্ব ঐতিহ্যের সম্ভাব্য তালিকায় দেশের ২১৫টি প্রত্নস্থান

আরও আছেন এম মোয়াজ্জেম হোসেন, অধ্যাপক মো. হাসিবুল আলম প্রধান, ড. প্রণব কুমার পান্ডে, মো. শাহজাহান, নওশের রহমান, চিকিৎসক জাহানারা আরজু, অধ্যাপক শবনম জাহান, অধ্যাপক জুনায়েদ হালিম, মোহাম্মদ শামসুর রহমান, বদিউজ্জামান বাদশা। ব্যারিস্টার সৌমিত্র সর্দার, ওমর ফারুক আসিফ, নাঈমুজ্জামান, শেখ আদনান ফাহাদ, এ বি এম আশরাফুজ্জামান, নাসরিন আক্তার, শওকত আলী পাটোয়ারী, আরেফা পারভীন তাপসী, এ কে এম সাজ্জাদ হোসেন শাহীন, আনিসুর রহমান মিঠু, নাজমুল করিম চৌধুরী, আমেনা কোহিনুর, শামীমা সুলতানা, এস এম এনামুল হক আবীর, নাজমুল ইসলাম তুহিন, জিয়া উদ্দিন আহমেদ ভূঁইয়া, রাশিদুল বাশার ডলার, মোহাম্মাদ এমদাদুল হক, সাজ্জাদ সাকিব বাদশা, সাকিবুর রহমান শরিফ কনক, মাসুদ পারভেজ খান ইমরান, গাজী আহানাফ সাকিব, ডা. হোসাইন ইমাম, ইঞ্জিনিয়ার মাহফুজুর রহমান হেভেন, সৈয়দ আবু তোহা, মাসুদ পথিক, আরিফ সোহেল, রায়হান কবির, রকিবুদ্দিন আহমেদ ঢালী, মাসুদ পারভেজ, হাসানুজ্জামান লিটন, সাংবাদিক মামুন অর রশিদ, লিপন মণ্ডল, এস এম রেজাউল হাফিজ রেশিম প্রমুখ। এ ছাড়া সারা দেশে প্রয়োজনীয় তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও বিশ্লেষণের জন্য বেশ কয়েকজন প্রাক্তন ছাত্র ও যুবনেতাকে এই উপকমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এসব ব্যক্তি তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ ও সংরক্ষণে এই উপকমিটি এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ডেটাবেইস টিমকে সার্বিকভাবে সহায়তা করবেন। এই ক্যাটাগরিতে যাঁদের সদস্য করা হয়েছে, তাঁদের পর্যায়ক্রমে চিঠির মাধ্যমে জানানো হবে বলে তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সেলিম মাহমুদ জানিয়েছেন।