মজাদার ‘মাসালা গুড়’ তৈরি করবেন যেভাবে

মজাদার ‘মাসালা গুড়’ তৈরি করবেন যেভাবে

বাজারে এখন গুড় সহজলভ্য। অনেকেই হয়তো পিঠা, পায়েসে মিশিয়ে গুড় খাচ্ছেন! তবে কখনো কি মাসালা গুড় খেয়েছেন! স্বাস্থ্যকর ও সুস্বাদু মাসালা গুড় চাইলেই আপনি সংরক্ষণ করে ডেজার্ট হিসেবে বা অবসর সময় খেতে পারেন। গুড়, ড্রাই ফ্রেুটস ও মসলার গুণে স্বাদে ও ঘ্রাণে অনন্য এক পদ হয়ে ওঠে এটি। ড্রাই ফ্রুটস শরীরের জন্য কতটা উপকারী তা সবাই কমবেশি জানেন! মাসালা গুড় তৈরিতে ব্যবহৃত হয় মেথি, আদা ও কালো মরিচের গুঁড়ো। সবগুলো মসলাই স্বাস্থ্যকর। অনেকেই গুড় খেতে পারেন না; তারা চাইলেই এ পদটি খেয়ে মুখের রুচি ফিরিয়ে আনতে পারেন। তাহলে আর দেরি কেন, জেনে নিন স্বাস্থ্যকর মাসালা গুড় তৈরির রেসিপি- উপকরণ ১. গুড় ১ কাপ (গুঁড়ো করা) ২. ঘি ১ টেবিল চামচ ৩. ড্রাই ফ্রুটস ভেজে নেওয়া ১/৪ কাপ ৪. আদার গুঁড়ো আধা টেবিল চামচ ৫. মৌরির গুঁড়ো আধা টেবিল চামচ ৬. কালো মরিচের গুঁড়ো আধা টেবিল চামচ পদ্ধতি চুলায় প্যান বসিয়ে ঘি গরম করে নিন। গুড় মিশিয়ে অল্প আঁচে ভাজতে থাকুন। এরপর এতে পানি মিশিয়ে নিন। ভালো করে নাড়তে থাকুন। একে একে আদা, মৌরি ও কালো মরিচের গুঁড়া দিয়ে বারবার নেড়ে দিন গুড়ের মিশ্রণ। এভাবে ৫ মিনিট নাড়ার পর ভেজে নেওয়া ড্রাই ফ্রুটসগুলো গুড়ের মধ্যে মিশিয়ে দিন। এসময় ভালো করে নাড়তে হবে। এভাবে ২ মিনিট নেড়ে নামিয়ে নিন। একটি চারকোণা পাত্রে মাখন ব্রাশ করে, তার উপর গুড় মাসালা ঢেলে দিন। এভাবেই ঠান্ডা হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। কয়েক ঘণ্টা রাখার পর এ মিশ্রণটি শুকিয়ে আসবে। যখন একেবারে শক্ত হয়ে যাবে; তখন যেকোনো আকারে কেটে নিন। চাইলে একটি এয়ারটাইট বক্সে মাসালা গুড় সংরক্ষণ করতে পারবেন দীর্ঘদিন।