স্বাদ ও গন্ধ ঠিক রেখে কাঁচা আম সংরক্ষণ করুন বছরজুড়ে

স্বাদ ও গন্ধ ঠিক রেখে কাঁচা আম সংরক্ষণ করুন বছরজুড়ে

মৌসুমি ফল আম। যা কাঁচা এবং পাকা দুই অবস্থাতেই খাওয়া যায়। কাঁচা থাকতে আমের স্বাদ টক এবং পেকে গেলে খুবই মিষ্টি হয়। তবে টক স্বাদের কাঁচা আমের নাম শুনলেই জিভে জল চলে আসে সবার। তাইতো কাঁচা আমের তৈরি আচার, ভর্তা, জুস, ডাল কিংবা তরকারি খেয়ে থাকেন সবাই। তাছাড়াও গরমকালে বাঙালির পছন্দের খাবারের অনেক রেসিপি সাজানো থাকে কাঁচা আম দিয়ে। তবে বছরজুড়ে এই কাঁচা আম পাওয়া সম্ভব হয় না। তবে আপনি চাইলে কাঁচা আম বছরব্যাপী সংরক্ষণ করে রাখতে পারেন। এই সংরক্ষণের পদ্ধতি সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যসম্মত এবং সহজ। উপকরণও পাওয়া যাবে হাতের নাগালেই। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক স্বাদ ও গন্ধ ঠিক রেখে কাঁচা আম সংরক্ষণের পদ্ধতিটি- যা যা লাগবে পরিমাণমতো পানি, হাফ টেবিল চামচ চিনি, হাফ টেবিল চামচ ভিনেগার। পদ্ধতি প্রথমে কাঁচা আমগুলো ভালোভাবে ধুয়ে নিন। তারপর আম থেকে খোসা ছাড়িয়ে আবার ধুয়ে নিন। এবার পছন্দমতো আকৃতিতে আমগুলো টুকরো করে নিন। আমের ভেতরের বিচি ও পাতলা সাদা কাগজের মতো অংশটি ফেলে দিন। এরপর অন্য একটি পাত্রে পরিমাণমতো পানি, হাফ টেবিল চামচ চিনি এবং হাফ টেবিল চামচ ভিনেগার একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণে এবার আমের টুকরোগুলো আধা ঘণ্টার মতো ভিজিয়ে রাখুন। ভেজানো হয়ে গেলে আমগুলো থেকে ছাঁকনির মাধ্যমে পানি ঝরিয়ে নিন। এবার টিস্যু দিয়ে আমের টুকরোগুলো আবারো ভালোভাবে মুছে নিন। একটি প্লেটে আমের টুকরোগুলো ছড়িয়ে দিন। যাতে এতে একদমই পানি না থাকে। পানি শুষে গেলে এভাবেই আমগুলো ডিপ ফ্রিজে দুই ঘণ্টার জন্য রেখে দিন। তারপর আমগুলো বের করে পছন্দের বক্সে সাজিয়ে নিন। এবার ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন। ব্যস, এই পদ্ধতিতে পুরো এক বছরের জন্য আপনি কাঁচা আম সংরক্ষণ করতে পারবেন। তাও এর স্বাদ ও গন্ধ ঠিক রেখে।