২০২০ এর জনপ্রিয় পাঁচ এয়ারবাডস

২০২০ এর জনপ্রিয় পাঁচ এয়ারবাডস

সহজে বহনযোগ্য আর দামে সস্তা হওয়ায় দিন দিন এয়ারফোনের চাহিদা বেড়েই চলেছে। গান শুনতে কিংবা কথা বলতে এর কোনো বিকল্প নেই। ফোনে কথা বলার সময় দীর্ঘক্ষণ হাতে ধরে থেকে হাত ব্যথা কিংবা কান গরম করার যুগ চলে গেছে অনেক আগেই। আর এই কাজগুলো সহজ থেকে সহজতর হতে বিভিন্ন কোম্পানি দিন দিন নতুন নতুন সব এয়ারফোন আনছেন বাজারে। 

এই ধারাবাহিকতা থেকে নেই এই মহামারিকালেও। মাত্র দু'বছর আগেও যেখানে কেবল মাত্র অ্যাপল-এরই এয়ারপডস বাজারে সীমাবদ্ধ ছিল। এখন সেই জায়গায় রিয়েলমি, অপ্পো, এমআই, জেবিএল, নয়েজ, বোট, বল্ট, জেভিসি-র মতো কোম্পানিগুলো প্রতি মাসেই প্রায় নিয়ম করে একের পর এক এয়ারবাডস নিয়ে হাজির হচ্ছে। আর চাহিদা এবং জনপ্রিয়তা থাকায় কোম্পানিগুলো নতুন পণ্যে আরো বেশি পরিমাণে উৎসাহিত হচ্ছে।

চলুন এ বছরের তেমনই কিছু জনপ্রিয় এয়ারফোনগুলোর সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক- 

ওয়ানপ্লাস বাডস
এই তালিকায় শুরুতেই আছে প্রিমিয়াম সেগমেন্টের ওয়ানপ্লাস বাডস। স্মার্টটিভি থেকে শুরু করে স্মার্টফোন - সবকিছু আগেই নিয়ে হাজির হয়েছিল চীনা সংস্থা ওয়ানপ্লাস। চলতি বছরেই ওয়ানপ্লাস বাডস লঞ্চ করে। এক বার চার্জেই ৩০ ঘণ্টা অবধি চলতে পারে এটি। ফাস্ট চার্জিংয়ে সক্ষম এই ইয়ারবাডস ১০ মিনিটের চার্জে ১০ ঘণ্টা টানা ব্যবহার করা যেতে পারে। নয়েজ ক্যান্সেলেশনের মতো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ফিচারের এই ওয়ানপ্লাস বাডসে তিনটি মাইক্রোফোন রয়েছে। এছাড়াও ব্যবহারকারীরা এর সাহায্যে ৩ডি স্টিডিওর মজাও উপভোগ করতে পারেন।

অপো ইনকো ডব্লিউ৫১
এরপর জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা অপো ইনকো ডব্লিউ ৫১ এয়ারবাডসটি। এর ফিচার্সের দিক থেকে রয়েছে নয়েজ ক্যান্সেলেশন, উইয়্যারিং ডিটেকশন, ডাস্ট এবং ওয়াটার রেজিস্ট্যান্স-সহ একাধিক ফিচার্স। একবার চার্জ দিয়েই চমৎকার এই এয়ারবাডস ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে। অন্য দিকে আবার অপোর এই এয়ারবাডসে ১০ মিনিট চার্জ দিলে ৯ ঘণ্টা অবধি মিউজিক শুনতে পারবেন ইউজারেরা। এই ডিভাইসের সঙ্গে এক বছরের ম্যানুফ্যাকচারিং বিনামূল্যেই অফার করছে কোম্পানি।    

রিয়েলমি বাডস এয়ার প্রো
স্মার্টফোনের সঙ্গেই ব্যাপক হারে বিক্রি হচ্ছে রিয়েলমি এয়ারবাডস। ডুয়াল মাইক এবং নয়েজ ক্যান্সেলেশনের মতো অত্যধুনিক ফিচারের এই চমৎকার এয়ারবাডসে একবার চার্জেই ২৫ ঘন্টা অবধি চলতে পারে। অন্য দিকে আবার ১০ মিনিট চার্জ দিলে এই রিয়েলমি বাডস এয়ার প্রো তিন ঘণ্টা লাগাতার ব্যবহার করা যেতে পারে। 

নয়েজ শটস এক্স৫ প্রো 
নয়েজ শটস এক্স৫ প্রো এয়ারবাডস এ বছরে বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। তবে বিভিন্ন এয়ারবাডসের মধ্যে বেশি নজর কেড়েছে নয়েজ শটস এক্স৫ প্রো। কোম্পানির তরফে দাবি করা হচ্ছে, এই নয়েজ ইয়ারবাডসের সাউন্ড কোয়ালিটি এই মুহূর্তে মার্কেটের সেরা। তার সঙ্গেই আবার যোগ হয়েছে নয়েজ শটস এক্স৫ প্রো-র চমৎকার ব্যাটারি ব্যাকআপ। একবার চার্জ দিলেই ১৫০ ঘন্টা অবধি টানা ব্যবহার করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। টাইপ সি চার্জিং পোর্টের এই ডিভাইসে ওয়াটার রেজিস্ট্যান্স-সহ আরো তাক লাগানো বেশ কিছু ফিচার্স রয়েছে। 

জেবিএল সি১০০
জেবিএল মানেই সাউন্ড কোয়ালিটির দিক থেকে চোখ বুঁজে ভরসা করা যেতে পারে। এই এয়ারবাডসেও চমৎকার কিছু ফিচার্স রয়েছে। অ্যাডভান্স স্টিডিও কলিং এবং অটো সিঙ্ক ফিচারের এই দুর্ধর্ষ এয়ারবাডসে আরো একাধিক নজরকাড়া ফিচার্স রয়েছে। জেবিএল সি১০০ এয়ারবাডসে একবার চার্জ দিলেই ১৭ ঘণ্টারও বেশি সময় ব্যবহার করা যেতে পারে।